আগস্ট 11, 2022
খরচ কম, তাই নজর উপশাখায়

খরচ কম, তাই নজর উপশাখায়

ব্যাংকগুলো আমানত সংগ্রহে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে। তবে আর্থিক অন্তর্ভুক্তি নিশ্চিতে উপশাখার মাধ্যমে ঋণ বাড়ানোর পরামর্শ দিয়েছেন খাত সংশ্লিষ্টরা।

রাজধানীর মিরপুর-১৪ নম্বর এলাকার ঢাকা ডেন্টাল কলেজ থেকে কচুক্ষেত এলাকায় যেতে সড়কের উভয় পাশে আটটি ব্যাংকের উপস্থিতি রয়েছে। এর মধ্যে একই জায়গায় দুদিকে সাতটি। এক পাশে সোনালী, ডাচ্–বাংলা ও প্রাইম ব্যাংকের ইব্রাহিমপুর এবং ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের সেনানিবাস শাখা। অপর পাশে আইএফআইসি, প্রিমিয়ার ও ইস্টার্ণ ব্যাংকের (ইবিএল) উপশাখা।

শাখাগুলো বেশ পুরোনো হলেও উপশাখাগুলো খোলা হয়েছে সাম্প্রতিক সময়ে। এর মধ্যে আইএফআইসি ব্যাংকের উপশাখাটি চালু হয় গত বছরের জুলাইয়ে। সেটিতে গিয়ে দুজন কর্মকর্তা, একজন কর্মচারী ও একজন নিরাপত্তা প্রহরী দেখা গেল। উপশাখাটি এ পর্যন্ত ১০ কোটি টাকা আমানত সংগ্রহ করেছে। তবে ঋণ দিয়েছে মাত্র ৭০ লাখ টাকা। এই উপশাখা আইএফআইসি ব্যাংকের মিরপুর শাখার অধীন। মিরপুর শাখার অধীনে এ রকম আরও ছয়টি উপশাখা রয়েছে।

উপশাখাটির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সোনিয়া হক প্রথম আলোকে বলেন, ‘ব্যাংকের প্রায় সব ধরনের সেবা এখানে দেওয়া হয়। মানুষ অবশ্য বিভিন্ন বিল জমা দিতে বেশি আসছেন।’

জানতে চাইলে আইএফআইসি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহ আলম সারওয়ার প্রথম আলোকে বলেন, ‘শহরে প্রতি তিন মাইল ও গ্রামে প্রতি পাঁচ মাইল পরপর আমাদের উপশাখা পৌঁছে যাবে। এসব উপশাখায় পূর্ণাঙ্গ শাখার মতো সব ধরনের ব্যাংকিং সেবা মিলছে। এভাবে আমরা এক কোটি পরিবারকে ব্যাংকিং সেবায় যুক্ত করতে চাই। সে জন্য প্রযুক্তি, ব্যবসায়িক মডেল ও মানবসম্পদে বড় বিনিয়োগ করা হয়েছে।’